করোনাতেও ব্যবসা বেড়েছে এয়ারটেলের, গ্রাহক-পিছু আয়ে টেক্কা Jio-কে , Bangla News

Spread the love

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম টেলিকম অপারেটর হিসেবে নিজের অবস্থান ধরে রাখল ভারতী এয়ারটেল। চলতি অর্থবর্ষের প্রথম ত্রৈমাসিকে ২১ শতাংশ আয় বৃদ্ধি পেয়েছে সংস্থার। মুনাফার পরিমাণ প্রায় ২৬,৮৫৩.৬ কোটি টাকা। তবে মোট মুনাফা ৬৩% হ্রাস পেয়েছে। নেট প্রফিট ২৮৩.৫ কোটি টাকা। তবে, টেলিকম ব্যবসায় এই ত্রৈমাসিকে উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থা।

বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশ্যে ভাষণে, এয়ারটেলের ভারত ও দক্ষিণ এশিয়ার সিইও গোপাল ভিত্তল বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে আয়ে প্রভাব পড়েছিল। আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া গ্রাহকরা কম খরচ করায় আয় কমেছিল সংস্থার। বাকি অংশগুলি থেকে ভালোই আয় হয়েছে। ‘এটাই আমাদের ব্যাবসার ভিত্তি ও শক্তির প্রমাণ দেয়,’ বলেন তিনি।

এই করোনা পরিস্থিতিতেও উপভোক্তার সংখ্যা বাড়িয়েছে সংস্থা। শুধু তাই নয়, গ্রাহক-পিছু আয়ের পরিমাণও বৃদ্ধি পেয়েছে এয়ারটেলের। ২০১৯ সালের জুনে এয়ারটেলের 4G গ্রাহকের সংখ্যা ছিল ৯.৫ কোটি। তার থেকে প্রায় দ্বিগুণ হয়ে ২০২১ সালের জুন মাসে তা ১৮.৪ কোটি হয়েছে।

অন্যদিকে নন-4G গ্রাহকের সংখ্যা এই একই সময়ে হ্রাস পেয়েছে। এই সময়পর্বে ১.৬ কোটি এই ধরনের গ্রাহক কমেছে। তবে তা হওয়াটাই স্বাভাবিক। এই গ্রাহকরা সম্ভব এয়ারটেলেরই বা অন্য সংস্থার 4G কানেকশানে আপগ্রেড করেছেন।

এই মুহূর্তে দেশে টেলিকম সংস্থাগুলির মধ্যে সবচেয়ে বেশি ARPU এয়ারটেলের। ARPU-র অর্থ গ্রাহক-পিছু আয়। এয়ারটেলের ক্ষেত্রে তা ১৪৬ টাকা। অন্যদিকে তুলনাস্বরূপ জিয়োর ARPU ১৩৮.৪ টাকা এবং ভোদাফোন-আইডিয়ার ১০৭ টাকা।

Source link


Spread the love
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
Secured By miniOrange